শান্তনু পান ডেবরা

ট্রেন আসবে কিছুক্ষণের মধ্যেই। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে রেলগেট। সেই রেলগেটের দু’দিকেই অপেক্ষা করছেন অনেকেই। কিন্তু মঙ্গলবার ভোরে এক বৃদ্ধ অপেক্ষা না করে সেই বন্ধ রেলগেট টপকে লেভেল ক্রসিং পার হওয়ার চেষ্টা করেন। তবে সফল হননি। মুহূর্তের মধ্যে ট্রেনের ধাক্কায় ছিন্নভিন্ন হয়ে যায় বৃদ্ধের দেহ।
পশ্চিম মেদিনীপুরের ডেবরা থানার বালিচক স্টেশনের লেভেল ক্রসিংয়ের ওই ঘটনায় স্তম্ভিত হয়ে যান প্রত্যক্ষদর্শীরা। তাঁরা জানাচ্ছেন, কেউ কিছু বুঝে ওঠার আগে কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই চোখের সামনে এমন ভয়াবহ ঘটনা ঘটে গেল। পুলিশ জানিয়েছে, ওই বৃদ্ধের নাম ভোলানাথ সুর (৬০)। বাড়ি বালিচক সংলগ্ন গোটগেড়িয়া এলাকায়। পারিবারিক সূত্রে জানা গিয়েছে, ভোলানাথ বেশ কিছুদিন ধরে মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন।
রেল পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এ দিন ভোরে বালিচক বিডিও অফিসের দিক থেকে বালিচক বাজারের দিকে যাচ্ছিলেন ওই বৃদ্ধ। সেই সময় খড়্গপুর থেকে এক্সপ্রেস ট্রেন আসছিল। ফলে লেভেল ক্রসিংও বন্ধ ছিল। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ওই বৃদ্ধ অন্যদের মতো অপেক্ষা না করে গেট ডিঙিয়ে লেভেল ক্রসিং পার হরওয়ার চেষ্টা করেন। তার আগেই এক্সপ্রেস ট্রেনটি ধাক্কা মারে তাঁকে।
খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় রেল পুলিশ। ডেবরা থানার পুলিশের সহযোগিতায় দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ওই ঘটনায় কিছুক্ষণ যান চলাচল ব্যাহত হয়। রাস্তায় দাঁড়িয়ে পড়ে একাধিক গাড়ি। পরে ডেবরা থানার পুলিশ আসার পরে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।
তবে এই ঘটনার পরে লোকজনের সচেতনতা নিয়েই প্রশ্ন উঠেছে। লেভেল ক্রসিং থাকার পরেও রাস্তা পেরোনোর এই ঘটনা শুধু বালিচক নয়, নজরে পড়ে প্রায় সর্বত্রই। বিপদও ঘটে। রেল দফতরের তরফে বারবার সচেতন করার পরেও হুঁশ ফেরে না। এই বিপজ্জনক প্রবণতার যে কী মর্মান্তিক পরিণতি হতে পারে তার সাক্ষী থাকল বালিচকও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here