আব্দুল হাসিম  রানিনগর

দুপুরে মাঠের কাজ শেষে বাড়ি ফিরছিলেন চর এলাকার ছিদাম মন্ডল। হঠাৎ শিশুর কান্না শুনে পাটের জমিতে যেতেই তিনি দেখেন, এক সদ্যোজাত নাগাড়ে কেঁদে চলেছে। স্থানীয় বাসিন্দারা ওই শিশুকে ডোমকল হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানেই মারা যায় শিশুটি। বুধবার রানিনগরের চর সরন্দাজপুর এলাকার ঘটনা।
ছিদাম মণ্ডল বলছিলেন, ‘‘পাটের জমির পাশ দিয়ে আসছিলাম। হঠাৎ বাচ্চার কান্নার আওয়াজ শুনতে পাই। সেদিকে এগিয়ে যেতেই দেখি, এক দুধের শিশু পড়ে পড়ে কাঁদছে। তারপরে আশপাশের বাড়ির লোকজনকে ডেকে আনি এবং ওই শিশুকে উদ্ধার করি।”
এ প্রসঙ্গে রানিনগর ২ ব্লকের স্বাস্থ্য আধিকারিক কামাল বাসার সরকার বলেন, “আমরা খবর পাই কাতলামারী ২ গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় একটি সদ্যোজাত শিশু উদ্ধার হয়েছে। তার বাবা, মায়ের কোনও হদিশ মেলেনি। হাসপাতাল থেকে সঙ্গে সঙ্গে সিনিয়র নার্স পাঠানো হয়। তারপরে ওই শিশুসন্তানকে উদ্ধার করে ডোমকল সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। সম্ভবত বাচ্চাটি বুধবারেই জন্মেছিল।” তবে ডোমকল সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, হাসপাতালে পৌঁছনোর কিছুক্ষণ পরেই শিশুটি মারা যায়।