তানিয়া বন্দ্যোপাধ্যায় পাল ● কলকাতা

উৎসবের মরসুম চলছে। বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসবের মধ‍্যেই শক্তিশালী রূপ ধারণ করেছে করোনা ভাইরাস। রাজ‍্যে ব‍্যাপক হারে বাড়ছে করোনা আক্রান্ত ও মৃত‍্যু। পরিস্থিতি সামাল দিতে যে পরিকাঠামোর কথা সরকারি স্তরে তৈরির কথা জানানো হয়েছে, তা অপ্রতুল বলেই মনে করছেন রাজ‍্যের চিকিৎসক মহলের একাংশ।

মঙ্গলবার রাজ‍্যের স্বাস্থ্য দফতরের দেওয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, নতুন করে ৩৯০০ জনের বেশি মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। গত কয়েকদিনে রাজ‍্যে দৈনিক চার হাজারের বেশি মানুষ নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। স্বাস্থ্য দফতরের দেওয়া তথ‍্য অনুযায়ী, একদিনে ৬০ জনের বেশি মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন।

পরিস্থিতি যে উদ্বেগজনক তা আগেই জানিয়েছিলেন রাজ‍্যের চিকিৎসকদের একটি বড় অংশ। সেই আশঙ্কার কথা মাথায় রেখে রাজ‍্য সরকার বাড়তি ব‍্যবস্থা তৈরির কথাও জানিয়েছে। আগেই রাজ‍্যের মুখ‍্য সচিব জানিয়েছিলেন, সরকারি হাসপাতালে কর্মরত চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মীদের ছুটি দেওয়া হবে না। তাঁরা জরুরি ভিত্তিতে পরিষেবা দেবেন। তাছাড়া রাজ‍্যে স্বাস্থ্যকর্মী ও নার্সদের সঙ্কট কমাতে দ্রুত নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ হবে। এ বার সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, সরকারি হাসপাতালে শুধুমাত্র করোনা আক্রান্তদের জন্য বাড়তি দু’হাজার শয‍্যার ব‍্যবস্থা করা হল। কলকাতা থেকে জেলা বিভিন্ন হাসপাতালে এই বাড়তি দু’হাজার আসন বণ্টন করা হয়েছে। রোগীরা যাতে চিকিৎসা পরিষেবা থেকে কোনওভাবেই বঞ্চিত না হন, তাই এই সিদ্ধান্ত।

যদিও সংক্রমণ যে হারে বাড়ছে, তাতে এই আসন অপ্রতুল বলেই মনে করছেন চিকিৎসকদের একাংশ। তাঁরা জানাচ্ছেন, দৈনিক চার হাজারের বেশি মানুষ সংক্রমিত হলে, এই পরিকাঠামোতে পরিষেবা দেওয়া যাবে না। উৎসব শুরুর আগেই চিকিৎসকদের একাংশ বারবার ঠাকুর দেখতে প‍্যান্ডেলে প্যান্ডেলে ঘুরে বেড়ানোর বিপদের কথাও জানিয়েছিলেন। সোশ‍্যাল মিডিয়ায় তাঁরা আর্জি জানিয়েছিলেন, এ বার বাড়িতে বসেই দুর্গাপুজোর উৎসব উপভোগ করতে। শেষ পর্যন্ত অবশ‍্য হাইকোর্টের নির্দেশে মণ্ডপে দর্শনার্থীদের ভিড় আটকানো গিয়েছে। কিন্তু বাজার, রেস্তোরাঁ ও রাস্তায় পুজোর ক’দিনে ব‍্যাপক ভিড় হয়েছিল। ফলে সামাজিক দূরত্ববিধির নিয়ম বেশিরভাগ ক্ষেত্রে মানা হয়নি। তাই সংক্রমণ বাড়ছে।

গোটা দেশে শেষ কয়েক দিনে দৈনিক সংক্রমণের হার কিছুটা কমেছে। কিন্তু রাজ‍্যে করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকায়  উদ্বেগ প্রকাশ করেছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। বিশেষজ্ঞদের মতে, রাস্তা-ঘাটে ও বাজারে ভিড় এড়াতে পারলেই সংক্রমণ আটকানো যাবে। কিন্তু রাজ‍্যে সেই ভিড় বহু জায়গায় আটকানো যায়নি।

(ফিচার ছবি গুগল থেকে নেওয়া)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here